বাংলাদেশে ভ্রমণ করার মতো কয়েকটি স্থান!

বাংলাদেশে ভ্রমণ করার মতো কয়েকটি স্থান!

নদী-নালা, খাল, বিল, পাহাড় ও সমুদ্র অনেক কিছু নিয়ে ছোটো একটি দেশ!  তার নাম বাংলাদেশ। আপনি কি জানেন? এশিয়ার ছোটো দেশ গুলোর মধ্যে বাংলাদেশ একটি। আর সে ছোটো দেশটি পর্যটকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে সব সময়। আর এদেশের মাছে ভাতে বাঙালি খুবই সহজ সরল ও আত্মীয়পরায়ণ একটা জাতি! তাই বাইরের দেশ থেকে কোনো পর্যটক আসলে তাদের সাদরে গ্রহণ করতে আমরা বাঙালিরা সব সময় প্রস্তুত। তো, এখন কেউ যদি জিজ্ঞেস করে বাংলাদেশে ভ্রমণ করার মতো ভালো কয়েকটি জায়গার নাম উল্লেখ করতে; তখন আমরা কী উত্তর দিতে পারি! সেটা নিয়েই আমাদের আজকের পোস্ট! চলুন শুরু করা যাক!

বাংলাদেশে ভ্রমণ করার মতো ৪টি স্থান: 

১. সুন্দরবন:

১৯৯৭ সালে বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী স্থান হিসেবে ইউনোস্কোর কাছ থেকে যে স্থানটি জায়গা করে নিয়েছে সেটি হলো আমাদের সুন্দরবন। এটি তিনটি অঞ্চল নিয়ে গঠিত যার মধ্যে আছে খুলনা বিভাগ ও পশ্চিমবঙ্গ। সুন্দরবনের বেশির ভাগ স্থানই বাংলাদেশে। তবে কেউ যদি সুন্দর বনে ঘুরতে চান তাহলে তাকে অবশ্যই কোনো দল বা গ্রুপ অনুযায়ী যেতে হবে! কারণ এই বনে অনেক ভয়ংকর জীব জন্তু আছে, যার ফলে একা যাওয়া খুবই ঝুঁকি। সুন্দরী গাছের আধিক্যের কারণে একে সুন্দরবন বলা হয়। সুন্দরবনের মূল আকর্ষণ হলো আমাদের জাতীয় পশু রয়েল বেঙ্গল টাইগার [যদিও এখন বাঘের সংখ্যা অনেক কমে গেছে]! এ ছাড়াও এখানে অনেক প্রজাতির প্রাণী পাওয়া যায়!

২. রাঙামাটি:

কাপ্তাই লেক কারণেই মূলত রাঙামাটি জেলা ভ্রমণ পিপাসুদের কাছে খুব জনপ্রিয়। লাল রঙের পাহাড়ি মাটির কারণে এই জেলার নাম রাঙামাটি। চারপাশে পাহাড়ে ঘেরাও করা যা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের একটি অন্যরকম প্রভাব দিয়ে মন ভরিয়ে দেয়। কাপ্তাই লেকে নৌকা নিয়ে ভ্রমণ করার মতো মজা আপনি মনে হয় আর কোথায়ও পাবেন কি না সন্দেহ আছে। হাতের তৈরি বিভিন্ন জিনিস পত্র কেনার জন্যও রাঙামাটি অনেক বিখ্যাত যেখানে আপনি খুব স্বল্প মূল্যে অনেক কিছু পেতে পারেন। এ ছাড়াও বৌদ্ধ বিহার, চাকমা রাজবাড়ি, শুভলং ঝরনা, ইত্যাদি জায়গা রয়েছে এখানে যা পর্যটকদের মন কাড়ে।

আরও পড়ুন: চর আলেকজান্ডার ভ্রমণ

৩. সিলেট:

সবুজের দেশ নামে খ্যাত জায়গাটার নাম সিলেট। আপনি সিলেট গেলে দেখতে পাবেন পাহাড় আর সাথে প্রাকৃতিক কিছু সৌন্দর্য। ভারতের মেঘালয় রাজ্যের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া জাফলং নামের জায়গাটি দেশের সব পর্যটকদের মন সব সময়ই কেড়ে নেয়। এ ছাড়া মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত,  রাতারগুল, হরিপুর গ্যাসক্ষেত্র এবং নানান ধরনের চা বাগান যে কোনো ভ্রমণপিপাসুকে মুগ্ধ করতে বাধ্য করবে!

৪. কক্সবাজার:

কক্সবাজার হলো সারা পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত! সমুদ্রের অবাধ নীল জলরাশি, ঢেউয়ের ছলাৎ ছলাৎ আওয়াজ, প্রতি বছরই বিশ্বের সারা প্রান্ত থেকে হাজার হাজার সমুদ্রপ্রেমীদের এখানে টেনে আনে! বাংলাদেশের পর্যটন খাতে সবচেয়ে বেশি অবদান রাখে এই কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত। অন্যান্য জায়গার তুলনায় কক্সবাজারে পর্যটকের সংখ্যাও অনেক বেশি!

********** 

বাংলাদেশে আরও অনেক ভ্রমণ করার মতো জায়গা আনাচে কানাচে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে! এরমধ্যে অনেকগুলো মানুষের কাছে বেশ জনপ্রিয়, অনেকগুলো আবার স্থানীয় মানুষ ছাড়া কেউই চিনে না! এসব জায়গা নিয়ে আমরা পরবর্তীতে আরও পোস্ট করার চেষ্টা করব!

ভবিষ্যৎ বাংলাদেশ হতে পারে সারা বিশ্বের পর্যটকদের প্রধান আকর্ষণের স্থান! তাই সরকারসহ আমরা সকল জনগণের উচিত পর্যটন শিল্পে যথাযথ অবদান রেখে এটাকে এগিয়ে যেতে সাহায্য করা।

ভালো লাগলে শেয়ার করুন:

1 thought on “বাংলাদেশে ভ্রমণ করার মতো কয়েকটি স্থান!”

  1. Pingback: চর আলেকজান্ডার ভ্রমণ! | ভ্রমণকাহিনি | অনুলিপি | Anolipi

Leave a Comment