I Am Kalam মুভি রিভিউ

“I Am Kalam” মুভি রিভিউ

“I Am Kalam” মুভি রিভিউ

Movie: I Am Kalam
Movie Type: Inspirational Movie

শুরুতেই বলে রাখি আমি কখনো রিভিউ লিখিনি। আর লেখার চেষ্টাও করিনি। তবে ইউটিউব থেকে না পুরো মুভি না দেখেই থামনেইল দেখেই I am Kalam মুভিটা ডাউনলোড করছি। রাতে ভেবেছিলাম দেখব। কিন্ত পরে আর দেখা হয়নি। যাই হোক পরবর্তী রাতে যখন দেখা শুরু করলাম, শুরুতেই মনটা ভালো ছিল। বাচ্চা ছেলেটার অবুঝ চেহারাটা হৃদয়ে কড়া নাড়া দিলো। মানলাম মুভি / সিনেমা বানানো গল্প তারপরও ভালো লাগাটা আসলে কখনো ভোলার মতো না।

অভাবী সংসারে জন্মদাতা মা যখন না পেরে সন্তানকে চা দোকানে কাজের জন্য দিয়ে আসে তখন হৃদয় বেদনাময় হয়ে যায়! মা তখন নিজেই নিজেকে অপরাধী মনে করে। লেখা-পড়ার প্রতি ছেলের অধম্য ইচ্ছা শক্তি যেন এক আর্তনাদের ঘোষণা দেয়। হাসি মুখো ছেলেটা নতুন পরিবেশে মানুষের সাথে মিশতে অনেক পছন্দ করে। যদিও চা দোকানের সিনিয়র কর্মচারীর নিত্যই কথা শুনতে হতো! রাতের বেলা শুতে গেলেও জায়গা পেত না। কিন্তু অবুঝ হাসি মুখো চালাক ছেলেটা নিজেই জানে কীভাবে জায়গা করে নিতে হয়।

আরও পড়ুন: ব্যাচেলর পয়েন্ট নাটক রিভিউ!

ভূতের ভয় দেখিয়ে সে ছেলেটা পেয়ে গেল ঘুমানোর স্থান। চা দোকানের মালিকের বানানো চা যে বিখ্যাত সেখানকার সকল মানুষ সহ বিদেশি পর্যটকও জানতো। এদিকে ছেলেটা প্রথম দিনেই দেখে ভালো চা বানাতে যেন পটু হয়ে গেল। সাধারণত চা দোকানে টিভি থাকে টিভির মধ্য এ পি জে কালামের সংবর্ধনা ও ভাষণ যেন তাকে পরিবর্তন করতে শুরু করে। সে ছেলেটা ঘরের মাঝে আয়নাতে নিজেকে দেখে কালাম ভাবতে লাগে স্যুট, কোর্ট, সু পরবে সবাই তাকে সেলুট করবে! এ আশায় সে সপ্ন বুনে। আর উুট (লাক্সমি) এর সাথে রাত জেগে ইংরেজিতে কথা বলতে থাকে।

চা দোকানের পাশেই টুরিস্ট হোটেলে রাজার ছেলে পিরিন্স তার ভালো বন্ধু হয়ে ওঠে। এখানে রাজার ছেলে হিন্দিতে দুর্বল আর চা দোকানে কাজ করা কালাম ইংরেজিতে দুর্বল। কালামের কী এক অধম্য ইচ্ছায় দুজনে সমন্বয় করে পড়তে লাগলো।

চা দোকানের সিনিয়র কর্মচারী তার সকল বই পুড়ে ফেলে দেয়। কিন্তু কালামের এই একক ইচ্ছার কাছে হার মানতে হয়! অবশেষে রাজা না জেনে শোনে চা দোকানের মালিককে বলে ছেলেটাকে চোর বলে এলাকা থেকে বের করে দিতে! মা যখন কালামকে চোর বলে তার মনের সকল কষ্ট আর চেপে না রাখতে পেরে গাড়িতে করে দিল্লি চলে আসে রাষ্ট্রপতি এ পি জে কালামকে একটি চিঠি দিতে এবং দেখা করতে।

রিভিউ লিখতে গিয়ে গল্পই লিখে ফেলছি! আসলে সিনেমাটা, আমার হৃদয় ছুঁয়ে গেছে! সবাই কে বলব একবার হলেও “I Am Kalam” মুভিটা দেখবেন।

ধন্যবাদ শুভ রাত্রি!

রাত: ১১.৪৬
[০৯-১২-২০২০]

“I Am Kalam” মুভি রিভিউ

ভালো লাগলে শেয়ার করুন:

2 thoughts on ““I Am Kalam” মুভি রিভিউ”

  1. Pingback: ব্যাচেলর পয়েন্ট নাটক যেন দর্শকদের মনে মিশে গেছে! | অনুলিপি

  2. Pingback: বন্ধুর বিয়েতে দাওয়াত না দেওয়ায় বিক্ষোভ ও সমাবেশ! | অনুলিপি

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *